নারায়নঞ্জের অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে লৌহজং হতে উদ্ধার করেছে র‌্যাব ॥ গ্রেপ্তার ২

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি॥

নারায়নগঞ্জের অপহরণ মামলার ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ২ অপহরকারী গ্রেপ্তারসহ অপহৃত ৮ শ্রেনীর স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১১। গতকাল রবিবার মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার নরসিংহপুর এলাকা হতে অহৃতাকে উদ্ধারসহ গ্রেপ্তার করা হয় ২ অপহরনকারীকে।
র‌্যাব জানায়, গত ২ মার্চ নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় দাপাইদ্রাকপুর এলাকায় এক ৮ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী অপহরণের ঘটনা ঘটে। সকাল ৮ টার দিকে ভিকটিম ৮ম শ্রেণীর ছাত্রীকে নিয়ে তার মা স্কুলে রেখে বাসায় চলে আসে। কিন্তু স্কুল ছুটি হওয়ার পরও অন্যান্য দিনের ন্যায় ভিকটিম শিশু ছাত্রী বাসায় না আসলে ভিকটিমের বাবা মা তাদের মেয়েকে স্কুলের আশপাশ সহ সম্ভাব্য সকল জায়গায় খুঁজতে থাকে। খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে লোক মারফত তারা জানতে পারে যে, গ্রেপ্তারকৃত আসামী মোঃ আরিফ শেখ (২৬) এবং রুপালী বেগম @ রুপা আক্তার (২৬) সহ অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জন মিলে দুইটি মোটর সাইকেল ও একটি সিএনজি নিয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা মডেল থানাধীন ইদ্রাকপুর পিলকুনি চৌরাস্তা মোড় হতে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়। ওই ঘটনায় ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে গত ৪ মার্চ ফতুল্লা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ৭/৩০ ধারায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে, যার মামলা নং-১৫।
উল্লে¬খিত বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সংগ্রহ সহ ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটনে ঘটনায় জড়িত আসামীদের গ্রেপ্তারে র‌্যাব-১১ এর একটি গোয়েন্দা দল ছায়া তদন্ত শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকষ আভিযানিক দল মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং থানাধীন নরসিংহপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৮ম শ্রেণীর শিশু শিক্ষার্থীকে উদ্ধারসহ মামলার দুই আসামী মোঃ আরিফ শেখ (২৬), পিতা-আছমত আলী শেখ, মাতা-মৃত সালমা বেগম, সাং-নরসিংপুর মুক্তিযোদ্ধা বাজার রোড, থানা- লৌহজং ও রুপালী বেগম @ রুপা আক্তার (২৬), স্বামী-শুভ মিয়া @ আলম, সাং-কাউটাইল প্রাইমারী স্কুলের সাথে, ইউপি-কোন্ডা, থানা-দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ, জেলা-ঢাকা’দ্বয়কে মামলা হওয়ার ৪৮ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।#